Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer 2022 | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮

Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science

Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer: আপনি যদি একজন ছাত্র হন তবে আজকের নিবন্ধটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে কারণ আজকে আমরা এই পোস্টে বিনামূল্যে দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ নিয়ে এসেছি। আপনি এই পোস্ট থেকে Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science এবং বিভিন্ন অধ্যয়ন সামগ্রী ডাউনলোড করতে পারেন।

আপনি যদি Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer ডাউনলোড করতে চান তাহলে নিচের ডাউনলোড বোতামে ক্লিক করুন। যা আপনার পথে আসা সব ধরনের প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় কাজে লাগবে।

উপরে উল্লিখিত Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer ডাউনলোড করতে আপনি যদি কোন সমস্যার সম্মুখীন হন, তাহলে মন্তব্য করে আমাদের জানান। এবং যদি আপনি এই পৃষ্ঠাটি দরকারী বলে মনে করেন তবে এটি ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদির মতো সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer Overview

নীচে আপনি দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ সম্পর্কে কিছু প্রাথমিক তথ্য পাবেন। দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ অতিরিক্ত বিবরণের জন্য, নীচের টেবিলটি দেখুন।

Class10
SubjectLife Science
CategoryClass 10 Part 8 Life Science
Official Websitehttps://govtjobcenter.in
Join Telegram GroupClick Here
Watch On YouTubeClick Here
Model Activity Task Class 10 Part 8 Life Science Answer 2022 | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮

Class 10 Life Science Model Activity Task Part 8 Solution

১. প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে তার ক্রমিক সংখ্যাসহ বাক্যটি সম্পূর্ণ করে লেখো :

১.১ উদ্ভিদের পর্বমধ্যের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি ঘটায় যে হরমোন সেটি নির্বাচন করো –

(ক) অক্সিন

(খ) জিব্বেরেলিন

(গ) সাইটোকাইনি

(ঘ) NAA

উত্তর: উদ্ভিদের পর্বমধ্যের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি ঘটায় যে হরমোন সেটি হল জিব্বেরেলিন হরমোন।

১.২ নীচের বক্তব্যগুলি থেকে মায়ােপিয়ার সঙ্গে সম্পর্কিত সমস্যাটি চিহ্নিত করাে —

(ক) চোখের লেন্সের স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যাওয়া 

(খ) বস্তুর প্রতিবিম্ব রেটিনার সামনে গঠিত হওয়া 

(গ) চোখের লেন্সের স্বচ্ছতা নষ্ট হয়ে যাওয়া

(ঘ) বস্তুর প্রতিবিম্ব রেটিনার পেছনে গঠিত হওয়া 

উত্তর: (খ) বস্তুর প্রতিবিম্ব রেটিনার সামনে গঠিত হওয়া 

১.৩ নীচের যে জোড়টি সঠিক তা স্থির করাে –

(ক) STH – থাইরয়েড গ্রন্থির বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করা 

(খ) ACTH – স্ত্রীদেহে ডিম্বাশয়ে গ্রাফিয়ান ফলিকলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করা 

(গ) FSH – রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা

(ঘ) ADH – বৃক্কীয় নালিকায় জলের পুনঃশােষণ ঘটানাে 

উত্তর: (ঘ) ADH – বৃক্কীয় নালিকায় জলের পুনঃশােষণ ঘটানাে 

১.৪ মানবদেহে করােটি স্নায়ুর সংখ্যা নিরূপণ করাে —

(ক) ১০ জোড়া 

(খ) ১২ জোড়া 

(গ) ২১ জোড়া

(ঘ) ৩১ জোড়া 

উত্তর: (খ) ১২ জোড়া

১.৫ পাতার মাধ্যমে প্রাকৃতিক অঙ্গজ বংশবিস্তার করে যে উদ্ভিদ সেটি নির্বাচন করাে—

(ক) মিষ্টি আলু

(খ) কচুরিপানা 

(গ) আদা

(ঘ) পাথরকুচি 

উত্তর: (ঘ) পাথরকুচি

১.৬ সংকরায়ণ পরীক্ষার জন্য মেন্ডেলের মটরগাছ বেছে নেওয়ার সঠিক কারণটি স্থির করাে —

(ক) মটর গাছের বংশবিস্তারে অনেক সময় লাগে 

(খ) মটর গাছে বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্যের উপস্থিতি খুবই কম 

(গ) মটর ফুল স্বপরাগী হওয়ার বাইরে থেকে অন্য চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য মিশে যাওয়ার সম্ভাবনা কম 

(ঘ) মটর গাছের ফুলগুলিতে কৃত্রিমভাবে ইতর পরাগযােগ ঘটানাে সম্ভব নয়

উত্তর: (গ) মটর ফুল স্বপরাগী হওয়ার বাইরে থেকে অন্য চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য মিশে যাওয়ার সম্ভাবনা কম 

১.৭ নীচের যে জোড়টি সঠিক নয় তা নির্বাচন করাে

(ক) ঈস্ট – কোরকোম 

(খ) মস – রেণু উৎপাদন 

(গ) প্লাসমােডিয়াম – পুনরুৎপাদন

(ঘ) অ্যামিবা – দ্বিবিভাজন 

উত্তর: (গ) প্লাসমােডিয়াম – পুনরুৎপাদন

১.৮ নীচের যে দুটি জিনােটাইপ গিনিপিগের কালাে ও মসৃণ ফিনােটাইপের জন্য দায়ী তা চিহ্নিত করাে —

(ক) BBRR ও BbRr 

(খ) BBrr ও Bbrr

(গ) BBRr ও BbRR

(ঘ) bbRr ও bbrr 

উত্তর: (খ) BBrr ও Bbr

১.৯ স্বাভাবিক পিতা এবং বর্ণান্ধতার বাহক মাতার বর্ণান্ধ কন্যাসন্তান জন্মানাের সম্ভাবনা নিরূপণ করাে— 

(ক) 0% 

(খ) 25%

(গ) 50%

(ঘ) 100% 

উত্তর: (ক) 0%

২. নীচের বাক্যগুলোর শূন্যস্থানগুলোতে উপযুক্ত শব্দ ৰসাও 1×3=3

২.১ ভাবের জালে_________________হরমোন থাকে।

উত্তর :- সাইটোকাইনিন

২.২ পায়রার একটি ডানায়_______________টি রেমিজেস নামক পালক থাকে।

উত্তর :- 23 টি

২.৩ RNA-তে থাইমিনের পরিবর্তে______________থাকে

উত্তর :- ইউরাসিল

৩. নীচের বাক্যগুলো সত্য অথবা মিথ্যা নিরূপণ করো  1×3=3

৩.১ অযৌন জননে দুটি জনিতৃ জীবের প্রয়োজন হয়।

উত্তর :- মিথ্যা

৩.২ সপুষ্পক উদ্ভিদে নিষেকের পর ডিম্বকটি ফলে পরিণত হয়।

উত্তর :- সত্য

৩.৩ কোনো জীবের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের বাহ্যিক প্রকাশকে ফিনোটাইপ বলে।

উত্তর :- সত্য

8. A-স্তন্তে দেওয়া শব্দের সঙ্গে B-স্তন্তে দেওয়া সর্বাপেক্ষা উপযুক্ত শব্দটির সমতা বিধান করে উভয় স্তম্ভের ক্রমিক নং উল্লেখসহ সঠিক জোড়টি পুনরায় লেখো :  1×3=3

A-স্তন্তA-স্তন্ত
৪.১ অন্ধবিন্দু(a) মাইটোসিস
৪.২ ড্রসিং ওভার(b) স্টক টি সিয়ন
৪.৩ গ্রাফটিং(c) রেটিনা ও অপটিক স্নায়ুর সংযোগস্থল
(d) নিয়োসিস

উত্তর :- 

A-স্তন্তA-স্তন্ত
৪.১ অন্ধবিন্দু(c) রেটিনা ও অপটিক স্নায়ুর সংযোগস্থল (a) মাইটোসিস
৪.২ ড্রসিং ওভার (d) নিয়োসিস
৪.৩ গ্রাফটিং(b) স্টক টি সিয়ন
৫. একটি শব্দে বা একটি বাঝে উত্তর দাও : 1×3=3

৫.১ মানব বিকাশের ব্যয়ঃসন্ধি দশার একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো।

উত্তর :- বয়ঃসন্ধি একটি সুনির্দিষ্ট প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে একটি শিশুর শরীর একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের শরীরে পান্তরিত হয় এবং প্রজননের সক্ষমতা লাভ করে ।

৫.২ বিসদৃশটি বেছে লেখো মটরের সবুজ রঙের বীজ, মটরের সবুজ রঙের ফল, গিনিপিগের সাদা রঙের লোম, গিনিপিগের মসৃণ লোম

উত্তর :- উ : গিনিপিগের মসৃণ লোম |

৫.৩ নীচে সম্পর্কযুক্ত একটি শব্দ জোড় দেওয়া আছে। প্রথম জোড়টির সম্পর্ক বুঝে দ্বিতীয় জোড়টির শূন্যস্থানে উপযুক্ত শব্দ বসাও :

মাইটোসিস : ক্রুগমূল ::___________:: রেণু মাতৃকোশ

উত্তর :- মাইটোসিস : ভূণমূল :: ডারউইন রেণু মাতৃকোশ

৬. দুই-তিন বাক্যে উত্তর দাও : 2×7=14

৬.১ নিম্নলিখিত বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে অন্তঃক্ষরা ও বহিঃক্ষরা গ্রন্থির পার্থক্য নিরূপণ করো—

  • নালির উপস্থিতি ও অনুপস্থিতি
  • ক্ষরিত পদার্থ

উত্তর :-

বৈশিষ্ট্যঅন্তঃক্ষরাগ্রন্থিবহিঃক্ষরা গ্রন্থি
নালির উপস্থিতি ও অনুপস্থিতিনালিবিহীন অর্থাৎ অনাল প্রকৃতির গ্রন্থিনালিযুক্ত অর্থাৎ সনাল প্রকৃতির গ্রন্থি
ক্ষরিত পদার্থঅন্তঃক্ষরা গ্রন্থিথে কে প্রধানতহ।রমোন ক্ষরিত হয়বহিঃক্ষরা গ্রন্থি থেকেউৎসেচক, লালারস,ঘাম প্রভৃতি ক্ষরিতহয়

৬.২ মাইটোসিসের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী দশায় নিউক্লিয়াসের কী কী পরিবর্তন ঘটে তা বর্ণনা করো।

উত্তর :- মাইটোসিসের দীর্ঘস্থায়ী দশায় নিউক্লিয়াসের পরিবর্তন :

মাইটোসিসের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী দশা হলো প্রোফেজ দশা | এই প্রোফেজ দশায় নিউক্লিয়াসের যে পরিবর্তন ঘটে তা নীচে বর্ণনা করা হলো :

নিউক্লিয়াস থেকে জলের বিয়োজন ঘটে | ফলে ক্রোমাটিন জালিকার ক্রোমাটিন তন্তুগুলি ক্রমশ সুস্পষ্ট হয় | ক্রোমাটিন জালিকা ঘনীভূত ও কুন্ডলীকৃত হয়ে ক্রোমোজোম লম্বালম্বি ভাগ হয়ে দুটি ক্রোমাটিড গঠন

সুত্রাকার ক্রোমোজোম গঠনকরে | প্রত্যেকটি করে। নিউক্লীয় পর্দা ও নিউক্লিওলাস প্রথমে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র খন্ডে ভেঙে যায় ও প্রোফেজ দশার শেষে অবলুপ্ত হয়।

৬.৩ টুপিক চলন ও ন্যাস্টিক চলন-এর দুটি পার্থক্য উল্লেখ করো।

উত্তর :- 

পার্থক্যের বিষয়ট্রপিক চলনন্যাস্টিক চলন
উদ্দীপকের ভূমিকাউদ্দীপকের উৎসের দিকের উপর নির্ভর।উদ্দীপকের তী ব্রতার উপর নির্ভরশীল ।
 অক্সিন হরমোনের প্রভাবএটি অক্সিন হরমোন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।এটি অক্সিন হরমোন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত নয় |
এই চলন স্থায়ীএই প্রকার চলনে উদ্ভিদের সামগ্রিক স্থান  পরিবর্তন ঘটে।এই প্রকার চলনে উদ্ভিদের সামগ্রিক স্থান পরিবর্তন ঘটে না।
চলনএই চলন স্থায়ীএই চলন অস্থায়ী

৬.৪ স্বপরাগযোগের একটি সুবিধা ও একটি অসুবিধা উল্লেখ করো।

উত্তর :- 

সুবিধা: স্বপরাগযোগ পদ্ধতিতে পরাগযোগের জন্য অন্য প্রজাতির উদ্ভিদ বা ফুলের প্রয়োজন হয় না।

অসুবিধা: স্বপরাগযোগ পদ্ধতিতে উৎপন্ন অপত্য উদ্ভিদ গুলি দুর্বল প্রকৃতির হয়।

৬৫ “একসংকর জননে F, জনুর ফিনোটাইপিক অনুপাত সবসময় 3:1 নাও হতে পারে” – উদাহরণের সাহায্যে ব্যাখ্যা করো।

উত্তর :-মেন্ডেল জনিতৃ জনুতে বা P জনুতে বিশুদ্ধ লম্বা মটর গাছের সঙ্গে বিশুদ্ধ খর্বকায় বা বেঁটে মটর গাছের ইতর পরাগযোগ ঘটান। যদি বিশুদ্ধ লম্বা মটর গাছের অ্যালিল TT এবং বিশুদ্ধ বেঁটে মটর গাছের অ্যালিল tt হয়, প্রথম অপত্য জনু F প্রথম অপত্য জনুতে উৎপন্ন সংকর লম্বা গাছ গুলির মধ্যে স্ব পরাগ যোগ ঘটালে দ্বিতীয় অপত্য জনু বা F তে 3:1 অনুপাতে লম্বা ও বেঁটে মটর গাছ অর্থাৎ 75% লম্বা ও 25% বেঁটে মটর গাছ উৎপন্ন হয়। দেখা যাচ্ছে, দ্বিতীয় অপত্য জনুতে উৎপন্ন মটর গাছগুলির ফিনোটাইপিক অনুপাত 3:1 (3টি লম্বা ও 1টি বেঁটে) হলেও জিনোটাইপিক অনুপাত (যা জিন বিশ্লেষণে প্রাপ্ত) 1:21 অর্থাৎ 25% বিশুদ্ধ লম্বা (TT), 50% সংকর লম্বা (Tt) ও 25% বিশুদ্ধ বেঁটে (tt) মটর গাছ।

৬.৬ নিম্নলিখিত বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে অযৌন ও যৌন জননের পার্থক্য নিরুপণ করো –

  • গ্যামেট উৎপাদন
  • মাইটোসিস বা মিয়োসিসের ওপর নির্ভরতা

উত্তর :- 

বিষয়অযৌন জননযৌন জনন
গ্যামেট উৎপাদনঅযৌন জননে গ্যামেটউৎপাদন হয় না।এই প্রকার জননে কেবল মাইটোসিস কোশ বিভাজন ঘটে।যৌন জননে পুংগ্যামেট ও স্ত্রী গ্যামেট সৃষ্টি হয়।
মাইটোসিস বা মিয়োসিসের ওপর নির্ভরতাএই প্রকার জননে কেবল মাইটোসিস কোশ বিভাজন ঘটে।এই প্রকার জননে গ্যামেট উৎপাদনকালে মিয়োসিস এবং জাইগোট থেকে অপত্য জীব উৎপাদনকালে মাইটোসিস কোশ বিভাজন ঘটে।

৬.৭ মাইক্রোপ্রোপাগেশন পদ্ধতিতে কীভাবে প্লান্টলেট সৃষ্টি করা হয় তা একটি রেখাচিত্রের সাহায্যে দেখাও।

উত্তর :- মাইক্রোপ্রোপাগেশন পদ্ধতিতে কিভাবে প্লান্টলেট সৃষ্টি করা হয় তার একটি রেখাচিত্র নিচে দেওয়া হল

উদ্ভিদের পাতা

কলা নমুনা

কর্ষণ মাধ্যমে কলা নমূনা

ক্যালাস গঠন

এমব্রিয়য়েড গঠন

প্ল্যান্টলেট গঠন

৭. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর লেখো : 5×3=15

৭.১ প্রাণীকোশের মাইটোসিস কোশ বিভাজনের মেটাফেজ দশার পরিচ্ছন্ন চিত্র অঙ্কন করে নিম্নলিখিত অংশগুলো  চিহ্নিত করো:

(ক) ক্লোমাটিড (খ) মেরু অঞ্চল (গ) সেন্ট্রোমিয়ার (ঘ) বেমতস্তু

উত্তর :- photo

(কেবল দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের জন্য)

প্রাণীকোশের মাইটোসিস কোশ বিভাজনের মেটাফেজ দশার তিনটি এবং টেলোফেজ দশার দুটি বৈশিষ্ট্য লেখো। 3+2 = 5

৭.২ একটি কোশচক্রের বিভিন্ন বিন্দুতে স্বাভাবিক নিয়ন্ত্রণ নষ্ট হলে কী ঘটতে পারে? জীবের বৃদ্ধি, প্রজনন ও ক্ষয়পূরণ কীভাবে কোশ বিভাজন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় তা বিশ্লেষণ করো।2+3 = 5

উত্তর :- মেটাফেজ দশার বৈশিষ্ট্য:

১) মেটাফেজ দশায় নিউক্লিয় পর্দা ও নিউক্লিওলাস বিলুপ্ত হয়।

২) উদ্ভিদ কোষের ক্ষেত্রে মাইক্রোটিউবিউল গুলি একত্রিত হয়ে বেতন্ত্র গঠিত হয় এবং প্রাণী কোষের ক্ষেত্রে সেন্ট্রিওলের অ্যাস্ট্রাল রশ্মি দ্বারা বেমতন্ত্র গঠিত হয়।

৩) এই দশার শেষের দিকে ক্রোমোজোমের সেন্ট্রোমিয়ার অনুদৈর্ঘ্য ভাবে দ্বিখণ্ডিত হতে শুরু হয়।

টেলোফেজ দশার বৈশিষ্ট্য:

১) টেলোফেজ দশা আর শুরুতে বেসের উভয় প্রান্তে সমান সংখ্যক ক্রোমোজোম থাকে এবং ক্রোমোজোম গুলি খুলে দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি পায়

২) নিউক্লিয়াসের মধ্যে নিউক্লিওলাসের পুনরাবির্ভাব ঘটে

উত্তর :- একটি কোষ চক্রের বিভিন্ন বিন্দুতে স্বাভাবিক নিয়ন্ত্রণ নষ্ট হলে যা ঘটতে পারে তা হল

(1) অনিয়ন্ত্রিত কোশ বিভাজন দেখা যাবে যার ফলে টিউমার সৃষ্টি হতে পারে।

(2) এইভাবে সৃষ্ট টিউমারগুলি বিনাইন অথবা ম্যালিগন্যান্ট প্রকৃতির হতে পারে।

(3) ম্যালিগন্যান্ট টিউমার শরীরে ক্যানসার রোগ সৃষ্টি করে।

কোশ বিভাজন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত

জীবের বৃদ্ধিঃ কোষ বিভাজনের ফলে কোষের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। উৎপন্ন কোষগুলি আবার আকারে বৃদ্ধি পায় অর্থাৎ জীব দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধি কোষ বিভাজন এর উপরেই নির্ভর করে।

প্রজনন : মাইটোসিস, অ্যামাইটোসিস ও মিয়োসিস কোষ বিভাজন বিভিন্ন প্রকার জননে সহায়তা করে। যেমন -মিয়োসিস কোষ বিভাজনের মাধ্যমে গ্যামেট এবং রেনু উৎপন্ন হয় যা, যথাক্রমে যৌন ও অযৌন জননের এর একক। মাইটোসিস, অযৌন জনন ও অংগজ জননের মাধ্যমে জীবের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অ্যামিবা অ্যামাইটোসিস পদ্ধতিতে প্রজনন সম্পন্ন করে।

ক্ষয়পূরণ : জীবের ক্ষতস্থান নিরাম্য, অংগের পুনরুতপত্তি মূলত মাইটোসিস কোশ বিভাজনের ফলেই ঘটে থাকে।

৭.৩ একটি বিশুদ্ধ হলুদ ও গােল বীজযুক্ত মটর গাছের (YYRR) সঙ্গে একটি বিশুদ্ধ সবুজ ও কুঞ্চিত বীজযুক্ত মটর গাছের (yyrr) সংকরায়ণের ফলাফল F₂ জনু পর্যন্ত চেকার বাের্ডের সাহায্যে দেখাও। এই সংকরায়ণ থেকে বংশগতির যে সূত্রটি পাওয়া যায় তা বিবৃত করাে ।

উত্তর – এই দ্বিসংকর জননের সংকরায়ন থেকে বংশগতির ‘স্বাধীন সঞ্চারণ সূত্র’ টি পাওয়া যায় ।

স্বাধীন সঞ্চারণ সূত্র – কোন জীবের দুই বা ততােধিক যুগ্ম বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্যগুলি জনিতৃ জনু থেকে অপত্য অনুতে সঞ্চারিত হওয়ার সময় একত্রিত হলেও শুধুমাত্র গ্যামেট গঠনকালে এরা যে পরস্পর থেকে পৃথক হয় তাই নয়, উপরক্ত প্রত্যেকটি বৈশিষ্ট্য তাদের ভাবে যেকোন বিপরীত বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে সম্ভাব্য সকল প্রকার সমন্বয়ে সঞ্চারিত হয়।

SEE THIS –

আপনি যদি এই সামগ্রীটি পছন্দ করেন তবে এটি আপনার বন্ধুদের সাথে Facebook এবং WhatsApp-এ শেয়ার করুন৷

আমি আশা করি আপনি এই নিবন্ধে দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ -এর সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য পেয়েছেন। আপনি যদি দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ -এর সম্পর্কিত আরও কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে চান তবে আপনি মন্তব্য করে জিজ্ঞাসা করতে পারেন। এখানে আমাদের দলের সদস্য যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনাকে উত্তর দেবে। সমস্ত দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ৮ -এর সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য আমাদের ওয়েব পৃষ্ঠা GovtJobCenter.In দেখুন।

Leave a Comment